1. admin@bangladeshshomachar.com : admin :
  2. mahadiislam.datasource@gmail.com : Mahadi Islam : Mahadi Islam
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৪৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মাঝারি ও ছোটরা এখনো দুর্দিনে পহেলা ডিসেম্বরকে মুক্তিযোদ্ধা দিবস ঘোষণার বিকল্প নেইঃচসিক মেয়র সীতাকুন্ডের চাঞ্চল্যকর কোরবান আলী হত্যা মামলার আসামী সুমন রামগড়ে আটক নারায়ণগঞ্জে ডিবি পরিচয়ে অপহরণকারী চক্রের ৫ সদস্য আটক;১ অপহৃত উদ্ধার গাজীপুরে ডিবি পরিচয়ে ডাকাতির চেষ্টা; ডাকাত চক্রের ৪ সদস্য আটক বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন, নতুন অধ্যায়ে দেশ-স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ঢাকার মিরপুরে আড়াই মন গাঁজাসহ ৪ জন আটক উন্নয়ন কর্মকান্ড যেন জনদুর্ভোগে পরিণত না হয় সেজন্য সকল সেবা সংস্থার সমন্বয় অত্যাবশ্যকঃ মেয়র তৎকালীন জমিদার বংশের ছেলে কক্সবাজারের হুমায়ুন কবির মহান মুক্তিযুদ্ধে সরাসরি সম্মুখ যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করে হারিয়েছেন সর্ব্বোচ্ছ সহ্য করেছেন অকথ্য নির্যাতন এর পরেও জায়গা মেলেনি মুক্তিযুদ্ধের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে এলজিআরডি মন্ত্রীর শোক প্রতিষ্ঠার ৪৪ বছরে পদার্পণ করল চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ

বিদেশি বিনিয়োগকারীদের নিয়ে দেশে আসুন: প্রবাসীদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা

Reporter Name
  • প্রকাশিত : শনিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৯ জন দেখেছেন
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাংলা‌দে‌শের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় সহযাত্রী হতে বি‌দেশি ‌বি‌নি‌য়োগকারী‌দের অংশীদার ক‌রে দেশে বিনিয়োগ আনতে প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান জা‌নি‌য়ে‌ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা।
বৃহস্পতিবার লন্ডনের কুইন এলিজাবেথ সেন্টারের চার্চিল হলে আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট সামিট ২০২১ : বিল্ডিং সাসটেইনেবল গ্রোথ পার্টনারশিপ’ শীর্ষক অনুষ্ঠা‌নে এই আহ্বান জানান তিনি।
ভি‌ডিও কনফা‌রে‌ন্সিংয়ের মাধ‌্যমে এই অনুষ্ঠা‌নে যুক্ত হ‌ন শেখ হা‌সিনা। প্রবাসী ব‌্যবসায়ীরা দে‌শে বি‌নি‌য়োগ কর‌লে তা‌দের সব ধর‌নের সু‌যোগ-সু‌বিধা নি‌শ্চিতের আশ্বাস দেন তিনি।
শেখ হা‌সিনা ব‌লেন, “আমা‌দের বাংলা‌দেশি ব‌্যবসায়ীরা যারা আছেন, তা‌দের‌কে আমি অনু‌রোধ কর‌ব যে আপনারা এখন নি‌জের দে‌শে আসেন, ইন‌ভেস্ট ক‌রেন। আর এখা‌নে যারা ব‌্যবসা কর‌ছেন, আপনারা বাংলা‌দে‌শে আপনা‌দের ইন্ডাস্ট্রি কর‌তে পা‌রেন।
“আপনারা আ‌সেন এবং যারা ব্রিটিশ ইন‌ভেস্টরস আছে, তা‌দের‌কে পার্টনার ক‌রে নি‌য়ে আসেন। তা‌দের সা‌থে আপনারা বাংলা‌দে‌শে এসে ব‌্যবসা ক‌রেন।”
খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পে এই বিনিয়োগ হতে পারে বলে পথ দেখান শেখ হাসিনা।
“এখন তো এদে‌শে (যুক্তরা‌জ‌্য) মানুষ ভাত আর কা‌রি খা‌চ্ছে। তো এই ক্ষে‌ত্রে আপনারা য‌দি আমা‌দের দে‌শে বি‌শেষ ক‌রে খাদ‌্য প্রক্রিয়াজাত ‌শিল্প গ‌ড়ে তো‌লেন, তাহ‌লে আমি ম‌নে ক‌রি, আরও বে‌শি ভালো, একেবারে তাজা শাক-সব‌জি, মাছ, ফলমূল সব নি‌য়ে আস‌তে পার‌বেন।”
“কারণ আমা‌দের এখন কৃ‌ষি‌তে বিপ্লব ঘ‌টে‌ছে। সারা বছরই আমরা সব ধর‌নের সব‌জি এবং সব‌কিছু উৎপাদন কর‌তে পা‌রি। গবেষণার মাধ‌্যমে সেটা আমরা অর্জন ক‌রে‌ছি,” বলেন তিনি।
ব‌্যবসায়ী‌দের আশ্বস্ত ক‌রে সরকার প্রধান ব‌লেন, “সব রকম সু‌যোগ-সু‌বিধা আপনারা পা‌বেন। আর কা‌রও য‌দি কোনো অসু‌বিধা থা‌কে, অবশ‌্যই আমি আছি। সব ধর‌নের.. সহজভা‌বে যা‌তে ব‌্যবসা কর‌তে পা‌রেন, সেই ব‌্যবস্থাটা আমরা ক‌রে দেব।
“আমি খুব খু‌শি হ‌ব, আমা‌দের বাংলা‌দে‌শি যারা আজ‌কে গ্রেট ব্রিটে‌নের বি‌ভিন্ন জায়গায় বসবাস কর‌ছেন, তারা য‌দি বাংলা‌দে‌শে আসেন এবং ব‌্যবসা ক‌রেন। তা‌দের জন‌্য বি‌শেষ ব‌্যবস্থা দেওয়া হ‌বে।”
অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্যের সিংহাসনের উত্তরাধিকার প্রিন্স চার্লস ও প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও বক্তব‌্য রা‌খেন।
শেখ হাসিনা বলেন, জ্বালানি, নবায়নযোগ্য জ্বালানি, জাহাজ নির্মাণ, অটোমোবাইল, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং, এগ্রো-প্রসেসিং, ব্লু ইকোনোমি, টুরিজম, হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ, তথ্য-প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন আকর্ষণীয় ক্ষে‌ত্রে সুবিধা নিয়ে বিদেশি বিনিয়োগের জন্য অপেক্ষা করছে বাংলাদেশ। যুক্তরাজ্যের উদ্যোক্তারা বিনিয়োগের জন্য এসব ক্ষেত্র বা এর বাইরে যে কোনো ক্ষেত্র বেছে নিতে পারে।
বাংলাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল, ২৮টি হাই-টেক পার্ক প্রস্তুত রয়েছে জানিয়ে বিনিয়োগের জন্য যুক্তরাজ্যের উদ্যোক্তাদের একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল বেছে নেওয়ার আহ্বানও জানান তিনি।
বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুবিধাগুলো তুলে ধরে সরকার প্রধান বলেন, দ্রুত নগরায়ন, মানুষের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সক্ষমতা বৃদ্ধি, মধ্যম আয়ের ভোক্তাদের ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধি, দক্ষিণ এশিয়ার বিশাল বাজারের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পাশাপাশি আঞ্চলিক যোগাযোগ বাড়ার কারণে বাংলাদেশ এখন আকর্ষণীয় বিনিয়োগ গন্তব্যে পরিণত হয়েছে।
বাংলাদেশের জনসম্পদের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিনিয়োগকারীদের জন্য প্রতিযোগিতামূলক মজুরিতে দক্ষ মানব সম্পদ পাওয়া নিশ্চিত করতে সরকার গুরুত্ব দিয়ে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করছে।
অনুকূল ব্যবসা পরিবেশ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষসহ সরকারের এজেন্সিগুলো সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেবে বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি। বাংলাদেশের পুঁজিবাজারেও বিনিয়োগ করার আমন্ত্রণও তিনি জানান।
এরই মধ্যে বেশ কয়েকটি বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে সফলভাবে তাদের ব্যবসা পরিচালনা কর‌ছে বলেও প্রধানমন্ত্রী জানান।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন বদলে যাওয়া দেশ। গত এক দশকে আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নতি করেছে। দেশকে উন্নত করতে সরকারের প্রচেষ্টার ফলে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা দিয়েছে।
পদ্মা সেতু, মেট্রোরেলসহ যোগাযোগ ও অবকাঠামো ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতি, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে অগ্রগতির কথাও বিদেশি ব্যবসায়ীদের কাছে তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।
এই বিনিয়োগ সম্মেলনের মাধ্যমে দুই দেশের বিনিয়োগকারীদের মধ্যে সম্পর্ক আরও ফলপ্রসূ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ঐতিহাসিক দিক তুলে ধরে তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের জন্মের পর থেকে বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য চমৎকার সম্পর্ক উপভোগ করছে। শুধু তাই না যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ গড়ায যারা এগিয়ে এসেছে, যুক্তরাজ্য তাদের মধ্যে অন্যতম। তখন থেকে দুই দেশের সম্পর্ক শক্তিশালী থেকে আরও শক্তিশালী হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তম রপ্তানি গন্তব্য এবং যুক্তরাজ্য বাংলাদেশে দ্বিতীয় বৃহত্তম বিনিয়োগকারী দেশ।
বিএস/কেসিবি/সিটিজি/৭ঃ৩৬পিএম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ

সহযোগী প্রতিষ্ঠান

© All rights reserved © 2021 The Daily Bangladesh Shomachar
প্রযুক্তি সহায়তায় একাতন্ময় হোস্ট বিডি