1. admin@bangladeshshomachar.com : admin :
  2. mahadiislam.datasource@gmail.com : Mahadi Islam : Mahadi Islam
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মাঝারি ও ছোটরা এখনো দুর্দিনে নেত্রকোণায় রুরাল জার্নালিস্ট ফাউন্ডেশনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ঢাকা বিমানবন্দরে ২২ হাজার পিস ইয়াবাসহ সৌদিগামী এক যাত্রী আটক কাব্য টোকাইয়ের অভিষেক”গ্রন্থ আলোচনায় প্রধান অতিথি বাংলা একাডেমির সচিব খাদ্য উৎপাদনে বাস্তবমূখী হতে হবে-মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী রাজাখালীতে অবৈধ অস্ত্র উচিয়ে শোডাউন;শীর্ষ সন্ত্রাসী মহিউদ্দিন জনি সহযোগীসহ আটক ১০০ কোটি টাকা আত্মসাত করে ঢাকায় বানায় আলিশান বাড়ি;জুবলী ট্রেডার্স এর মালিক হায়দার আলী আটক সর্বক্ষেত্রে দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের মাধ্যমে নারীর অগ্রযাত্রা সম্ভব -তথ্য ও সম্প্রচার সচিব নোয়াখালী সোনাইমুড়ী বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু সুরাজপুর-মানিকপুর ও বিএমচর ইউনিয়নে আইএসডিই এর উদ্যোগে ৩০০ পরিবারের মধ্যে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ বাগীশিক নাজিরহাট পৌরসভা সংসদের সনদ পত্র বিতরন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

সিআরবি ইস্যু;দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সা. সম্পাদকের ভিন্ন সুর!

Reporter Name
  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১
  • ৮৩ জন দেখেছেন

কমল চক্রবর্তীঃচট্টগ্রাম থেকেঃ
সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধীতা করে মাঠে নেমেছে চট্টগ্রামের শিল্পী সমাজ, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সর্বস্থরের মানুষ। হাসপাতাল নির্মাণের ঘোষণার পর থেকে মাঠে সরব আছে সকল প্রকৃতি প্রেমী ও চট্টগ্রামের বিশিষ্টজন থেকে শুরু করে সাধারণ জনগণ। এরমধ্যে প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক কারণে সেখানে হাসপাতাল নির্মাণের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়ে চট্টগ্রামের ১০১ বিশিষ্ট নাগরিকরা বিবৃতি দিয়েছেন। তাদের সকলের একটাই দাবি নগরীর ফুসফুস খ্যাত সিআরবিতে হাসপাতাল চাই না। সিআরবি এখন টক অব দ্যা টাউন। সিডিএ বলেছে তাদের কাছ থেকে হাসপাতাল নির্মাণের কোন অনুমোদন নেয়া হয়নি। এদিকে হাসপাতাল নির্মাণের পক্ষে অনড় অবস্থান জানিয়ে দিয়েছে রেলওয়ে ও সরকার দলীয় অনেকেই।

সিআরবি ইস্যু নিয়ে খোদ সরকারী দলেই তৈরী হয়েছে দ্বিধাবিভক্তি। তৈরি হয়েছে দুই পক্ষ। একপক্ষ বলছে সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধীতা করা মানে প্রধানমন্ত্রীর বিরোধিতা করা। কারো ইন্দনে হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধীতা করা হচ্ছে। আরেক পক্ষ বলছে প্রধানমন্ত্রীকে ভুল বুঝিয়ে হাসপাতাল করার অনুমোদন নেয়া হয়েছে। এখানে হাসপাতাল নির্মাণ করতে দেয়া হবে না।  সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে ভিন্ন সুরে কথা বলছেন খোদ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চট্টগ্রাম ৮ আসনের সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দীন আহমদ ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মফিজুর রহমান।

চট্টগ্রাম মহানগরীর সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনকে উদ্দেশ্যমূলক ও হীন স্বার্থের আন্দোলন বলে অভিহিত করে এই হাসপাতাল স্থাপনের বিরোধিতা কোনোমতেই কাম্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দীন আহমদ এমপি। প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাতেই এই প্রকল্প নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এর বিরোধিতা করা মানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরোধিতা করা।

বঙ্গবন্ধুর ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সম্মিলিত কর আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় পিপিপির মাধ্যমে সিআরবি এলাকায় একটি হাসপাতাল নির্মাণের প্রকল্প গ্রহণ করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ; যেখানে বর্তমানে কিছু ঝুপড়ি ঘর ও দোকানপাট রয়েছে। অথচ এক শ্রেণির লোক কিছু না বুঝে হীন স্বার্থে হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধিতা করে যাচ্ছে। এই এলাকায় যখন সিএনজি ফিলিং স্টেশন করা হয়েছে তখন বিরোধিতা করা হয়নি। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় করা হয়েছে, তখন বিরোধিতা করা হয়নি কেন? প্রশ্ন তোলেন তিনি।

এমপি মোছলেম বলেন, কিছু স্বার্থান্বেষী মহল বিভিন্ন হাসপাতাল মালিকের ইন্ধনে সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধিতা করছে, যা কাম্য নয়।

সভাপতির এমন বক্তব্যের বিরোধিতা করে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, পুরো সিআরবি এলাকা মাস্টার প্ল্যানের আলোকে ২০০৯ সালে সিডিএ প্রণীত ডিটেইল এরিয়া প্ল্যানভুক্ত (ড্যাপ)। এ সিআরবিকে ‘সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য’ হিসেবে সংরক্ষণের কথা উল্লেখ আছে। বাংলাদেশের সংবিধানের ২৪ নং অনুচ্ছেদে বলা আছে, বিশেষ শৈল্পিক কিংবা ঐতিহাসিক গুরুত্ব সম্পন্ন বা তাৎপর্যমণ্ডিত স্মৃতি রক্ষার জন্য রাষ্ট্র ব্যবস্থা গ্রহণ করিবে।

তিনি বলেন, সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের জন্য যে ৬ একর জায়গা চিহ্নিত করা হয়েছে, সেখানে রয়েছে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চাকসু) জিএস আবদুর রবসহ অসংখ্য শহীদের সমাধিস্থল। এখানে হাসপাতাল হলে শহীদের স্মৃতিস্তম্ভও বিলীন হয়ে যাবে। শহীদ আবদুর রবের নামে থাকা রেলওয়ে কলোনিটিও ধ্বংস হয়ে যাবে। একই সঙ্গে হারিয়ে যাবে মহান মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার ক্যাপ্টেন রফিকের তৎকালীন কমান্ড অফিস কাঠের বাংলোটি। ওরা বলছে হাসপাতাল হলে গাছ কাটা পড়বে না। অথচ হাসপাতাল নির্মাণের নির্ধারিত স্থানেই আছে শতবর্ষীসহ তিনশ গাছ।

মফিজুর রহমান বলেন, হাসপাতালটি প্রতিষ্ঠার জন্য ২০১৭ সালে আহূত ইনভাইটেশন ফর বিড (আইএফবি) নোটিশে প্রকল্পের স্থান হিসেবে সিআরবির নাম ছিল না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে তথ্য গোপন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে তথ্য গোপন করে এটার অনুমোদন নেওয়া হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস, প্রধানমন্ত্রী এই হাসপাতাল করতে দেবেন না। এটা যে হেরিটেজ এরিয়া এবং এখানে যে শহীদের কবর রয়েছে তা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয়নি। তিনি প্রকৃতিবান্ধব প্রধানমন্ত্রী। তিনি প্রকৃতি ধ্বংস করে শহীদের কবরের উপর কোনোদিন হাসপাতাল করবেন না। যারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে তথ্য গোপন করেছেন আমি তাদের বিচার দাবি করছি।

এদিকে চট্টগ্রামের ফুসফুসখ্যাত রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সদর দফতর সংলগ্ন সিআরবি এলাকায় হাসপাতাল নির্মাণ থেকে সরে আসার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) জাহাঙ্গীর হোসেন।

তিনি বলেন, ‘সিআরবি এলাকায় সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের (পিপিপি) শর্ত মেনেই ইউনাইটেড হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি করা হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী সিআরবির গোয়ালপাড়া এলাকায় হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। হাসপাতাল নির্মাণকে কেন্দ্র করে সিআরবিতে গাছ কেটে ফেলার কোনও আশঙ্কা নেই। সিআরবির পরিবেশ আগের মতোই থাকবে। তাই হাসপাতাল নির্মাণ থেকে সরে আসার যৌক্তিক কোনও কারণ নেই। চুক্তি অনুযায়ী হাসপাতাল নির্মিত হবে।’

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে রেলওয়ের মহা পরিচালক (ডিজি) ধীরেন্দ্র নাথ মজুমদার সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, প্রস্তাবিত স্থানেই হাসপাতাল হবে। হবে মানে হবে। এই প্রকল্প প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এবং যথাসময়ে কাজ এগিয়ে নেওয়ার নির্দেশনা রয়েছে পিএম কার্যালয়ের। এরআগে রেলওয়ের জিএম জাহাঙ্গীর হোসেন, রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনও হাসপাতাল নির্মাণ ইস্যুতে আন্দোলনকারীদের দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন হাসপাতাল নির্মাণ হবেই হবে।

বিএস/কেসিবি/সিটিজি/৭ঃ৫৪পিএম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ

About Us

সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. খান আসাদুজ্জামান
ঠিকানা: এম এস প্লাজা (৮তলা) ২৮সি/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল, বা/এ, ঢাকা-১০০০
নিউজ সেকশন: ০১৬৪১৪২৮৬৭০
বিজ্ঞাপন: ০১৯৯৬৩০৩০৭১
মফস্বল: ০১৭১৫২২৮৩২২
ই-মেইল: bangladeshshomachar@gmail.com
ওয়েবসাইট: www.bangladeshshomachar.com
ই-পেপার: www.ebangladeshshomachar.com
© All rights reserved © 2021 The Daily Bangladesh Shomachar
প্রযুক্তি সহায়তায় একাতন্ময় হোস্ট বিডি