1. admin@bangladeshshomachar.com : admin :
  2. mahadiislam.datasource@gmail.com : Mahadi Islam : Mahadi Islam
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মাঝারি ও ছোটরা এখনো দুর্দিনে নেত্রকোণায় রুরাল জার্নালিস্ট ফাউন্ডেশনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ঢাকা বিমানবন্দরে ২২ হাজার পিস ইয়াবাসহ সৌদিগামী এক যাত্রী আটক কাব্য টোকাইয়ের অভিষেক”গ্রন্থ আলোচনায় প্রধান অতিথি বাংলা একাডেমির সচিব খাদ্য উৎপাদনে বাস্তবমূখী হতে হবে-মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী রাজাখালীতে অবৈধ অস্ত্র উচিয়ে শোডাউন;শীর্ষ সন্ত্রাসী মহিউদ্দিন জনি সহযোগীসহ আটক ১০০ কোটি টাকা আত্মসাত করে ঢাকায় বানায় আলিশান বাড়ি;জুবলী ট্রেডার্স এর মালিক হায়দার আলী আটক সর্বক্ষেত্রে দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের মাধ্যমে নারীর অগ্রযাত্রা সম্ভব -তথ্য ও সম্প্রচার সচিব নোয়াখালী সোনাইমুড়ী বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু সুরাজপুর-মানিকপুর ও বিএমচর ইউনিয়নে আইএসডিই এর উদ্যোগে ৩০০ পরিবারের মধ্যে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ বাগীশিক নাজিরহাট পৌরসভা সংসদের সনদ পত্র বিতরন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

এফবিসিসিআই আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর কৃষি ভাবনা :আগামীর চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা বিষয়ক সেমিনারে দেশবরেণ্য ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রাখেন

Reporter Name
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৩ আগস্ট, ২০২১
  • ৬৬ জন দেখেছেন

রানা চৌধুরী, সহ-সম্পাদক :
গতকাল এফবিসিসিআই আয়োজিত স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৬তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস-২০২১ উপলক্ষ্যে ’বঙ্গবন্ধুর কৃষি ভাবনা : আগামীর চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক ভার্চুয়াল সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

স্বাধীনতার প্রথম বছর স্বাধীন বাংলাদেশের রূপকার বঙ্গবন্ধু যখন রাষ্ট্র পরিচালনার হাল ধরলেন তখন বঙ্গবন্ধুর জন্য চ্যালেঞ্জ ছিল অনেক। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ, অর্থনীতির ভঙ্গুর অবস্থা, কলকারখানায় উৎপাদন বন্ধ, বিপর্যস্ত যোগাযোগ ব্যবস্থা । ১৯৭২-৭৩ সালে জিডিপির আকার ছিল ৪২৯৪ কোটি টাকা, রপ্তানি আয় ৩৩ কোটি ডলার, আমদানি ২৮ কোটি ডলার, রেমিরেন্স ৮০ লাখ ডলার, মাথাপিছু আয় ১২৯ মার্কিন ডলার, বৈদেশিক রিজার্ভ প্রায় শুন্য, বিদ্যুৎ উৎপাদন ৪০০ মেগাওয়াট, ডলার এক্সচেঞ্জ রেট ছিল ৭.৭৮ টাকা এবং দারিদ্রের হার ছিল প্রায় ৮৮ শতাংশ। কৈশোর ও তরুণ বয়স থেকেই বঙ্গবন্ধু বাংলার কৃষকদের দৈন্যদশা স্বচক্ষে দেখেছেন, যা তার অন্তরে গভীরভাবে রেখাপাত করে।

সেজন্য আমরা দেখেছি বঙ্গবন্ধু তার রাজনৈতিক জীবনে এদেশের মেহনতি মানুষ কৃষকের কল্যাণ ও কৃষি উন্নয়নকে গুরুত্ব দিয়ে সমস্ত নীতিমালা প্রণয়ন করেছিলেন। বঙ্গবন্ধু ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্টে নির্বাচনে জয়ী হয়ে কৃষি ও সমবায় মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি তার বিচক্ষণ ও দূরদর্শী চিন্তা চেতনার মাধ্যমে প্রথমে গুরুত্ব দেন বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ দেশগুলোর সাথে বাংলাদেশের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, কারিগরি ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সম্পর্ক গড়ে তোলার।

বাণিজ্য সম্প্রসারণে তিনি প্রথমে ইউরোপিয় দেশসমূহের সাথে বার্টার এগ্রিমেন্ট করেন। তখন রপ্তানী হতো সীমিত কিছু পণ্য পাট ও পাটজাত পণ্য, তামাক, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, কুটির শিল্প, চা, দিয়াশলাই এমনকি ঝাড়ুও। স্বাধীন বাংলাদেশের সরকার গঠনের পরপরই বঙ্গবন্ধু কৃষি উপকরণ, কৃষি গবেষণা, নতুন জাত উদ্ভাবন ও কৃষি খাতে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যাবহার ইত্যাদিকে গুরুত্ব দিয়ে কৃষি খাতে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে সবুজ বিপ্লবের ডাক দেন। একটি দূর্যোগপূর্ণ অর্থনৈতিক ও কৃষি ব্যবস্থাপনায় বঙ্গবন্ধু দেশ পুণর্গঠনের কার্যক্রম শুরু করেন।

১৯৭২ সালের ২৬ মার্চ ভাষণে বঙ্গবন্ধু কৃষি খাতের উন্নয়নে তার পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন- ‘আমাদের চাষীরা হলো সবচেয়ে দুঃখী ও নির্যাতিত শ্রেণী এবং তাদের অবস্থার উন্নতির জন্য আমাদের উদ্যোগের বিরাট অংশ অবশ্যই তাদের পিছনে নিয়োজিত করতে হবে’। কৃষিখাতকে অগ্রাধিকার দিয়ে ১৯৭২-৭৩ অর্থবছরে বাজেটে ৬০ ভাগ পল্লী এলাকায় উন্নয়নের জন্য ব্যয়ের ঘোষণা দেয়া হয়।বঙ্গবন্ধুর কৃষিখাতের নেয়া সমস্ত পদক্ষেপ বাস্তবায়নের ফলে ১৯৭৫ সালে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ধান উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছিল।

উক্ত সেমিনারে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বাংলাদেশ আজ সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। এখন আমাদের কেউ তলাবিহীন ঝুড়ির দেশ বলে না। আমরা আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং কৃষিতেও শতভাগ সাফল্য অর্জন করেছি। বঙ্গবন্ধু তার রাজনৈতিক জীবনে এদেশের মেহনতি মানুষ কৃষকের কল্যাণ ও কৃষি উন্নয়নকে গুরুত্ব দিয়ে সমস্ত নীতিমালা প্রণয়ন করেছিলেন, ঠিক সেই ধারাবাহিকতায় তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আজ কৃষি উন্নয়নের দ্বার উন্মোচন করেছেন।

সেমিনারে এফবিসিসিআই সভাপতি জসিম উদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য তাঁর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কৃষি খাতের উন্নয়নে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। ১৯৯৬ এবং পরবর্তীতে ২০০৯ সালে দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এদেশের কৃষির উন্নয়ন এবং কৃষকের কল্যাণে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন। এই করোনাকালেও কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি ও কৃষকের আস্থা ধরে রাখতে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচীর আওতায় ৮৬ কোটি ৪৩ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকার অর্থ ছাড় দেয়া হয়েছে।

সেমিনারের প্রসঙ্গে আলাপকালে এফবিসিসিআই সহ-সভাপতি মো:আমীন হেলালী বলেন,বঙ্গবন্ধুর নিকট সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল দেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থার জন্য নীতিনির্ধারণ করা ও প্রায় ২০০ বছর ধরে অবহেলিত কৃষি এবং কৃষকের উন্নয়ন এবং শিল্প ও বাণিজ্য-কে পুনরুদ্ধার করা। তবে আজ আমরা মাননীয় প্রধানমন্রীর সঠিক দিক নির্দেশনায় সফল হয়েছি।

সেমিনার নিয়ে একান্তে আলোচনায় এফবিসিসিআই পরিচালক এমজিআর নাসির মজুমদার বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরে আমরা উন্নয়নশীল দেশের নাগরিক। এটাই আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অর্জন। ১৯৯৬ এবং পরবর্তী ২০০৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত তিনি উন্নয়নের যে সব সাহসী ও বিস্ময়কর পদক্ষেপ নিয়েছেন এর অনেক কিছুই এখন দৃশ্যমান।

সেমিনারের গুরুত্ব তুলে ধরে এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক আবু নাসের বলেন, অগ্রগামী এসাফল্যের পেছনে সরকারের সহযোগী হিসেবে ভূমিকা রেখেছে বেসরকারি খাত। আমরা আশা করি অতীতের ন্যায় আগামীতেও আমাদের সমন্বিত প্রচেষ্টায় সব চ্যালেঞ্জ উত্তরণ করতে পারবো। উক্ত সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড.আতিয়ার রহমান, অর্থনীতিবিদ এ এইচ মনসুর, এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি হাবিব উল্লাহ ডন, পরিচালক হাফেজ হারুন ও আহসান খান চৌধুরীসহ প্রমুখ।

বিএস/কেসিবি/সিটিজি/১১ঃ১৭পিএম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ

About Us

সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. খান আসাদুজ্জামান
ঠিকানা: এম এস প্লাজা (৮তলা) ২৮সি/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল, বা/এ, ঢাকা-১০০০
নিউজ সেকশন: ০১৬৪১৪২৮৬৭০
বিজ্ঞাপন: ০১৯৯৬৩০৩০৭১
মফস্বল: ০১৭১৫২২৮৩২২
ই-মেইল: bangladeshshomachar@gmail.com
ওয়েবসাইট: www.bangladeshshomachar.com
ই-পেপার: www.ebangladeshshomachar.com
© All rights reserved © 2021 The Daily Bangladesh Shomachar
প্রযুক্তি সহায়তায় একাতন্ময় হোস্ট বিডি