1. admin@bangladeshshomachar.com : admin :
  2. mahadiislam.datasource@gmail.com : Mahadi Islam : Mahadi Islam
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:০৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মাঝারি ও ছোটরা এখনো দুর্দিনে উপজেলা ও পৌরসভাগুলোকে শক্তিশালী করতে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছেঃমুখ্য সচিব সরকার আইটি খাতকে গুরুত্ব দেয়ায় দেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে-মেয়র পরীর পাহাড়ের পরিবেশ সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের নির্দেশনা দেন মুখ্য সচিব বিশ্ব নেতৃবৃন্দের আমন্ত্রণেই প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে গেছেনঃ তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে ই-ট্রাফিক প্রসিকিউশন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ডিআইজি আনোয়ার হোসেন চট্টগ্রামের মানুষের মঙ্গলের জন্য যা করা প্রয়োজন তাই করা হবেঃমুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস রংপুরে মাদক ব্যবসায়ীর ছুরিকাঘাতে পুলিশ কর্মকর্তা পিয়ারুলের মৃত্যু চট্টগ্রাম নগরীর কাট্টলীতে প্রস্তাবিত মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ ও যাদুঘরের স্থানপরিদর্শন করলেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব সাড়ে তিন হাজার মাদক কারবারির তালিকা প্রস্তুত ডিএনসি’র; গ্রেপ্তারে চলবে অভিযান নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অন্বেষন ও জ্ঞানের দুয়ার খুলে দিতে হবে -মেয়র

নগরীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১৫৪ মামলায় ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড

Reporter Name
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১
  • ৫৬ জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

করোনাভাইরাসজনিত রোগ (কোভিড-১৯) এর বিস্তার রোধকল্পে সরকার ঘোষিত সার্বিক কার্যাবলী / চলাচল বিধি- নিষেধ সফলভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা কালে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকানপাট/শপিংমল খোলা রাখা, অপ্রয়োজনে রাস্তায় ঘুরাফেরা করা, ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত রাস্তায় বের হাওয়াসহ বিভিন্ন অপরাধে মোট ১৫৪ টি মামলায় ৫০,৬০০ অর্থদণ্ড করা হয়।

আজ শুক্রুবার ৩০ জুলাই দিনব্যাপী জেলা প্রশাসন, চট্টগ্রামে ১৮ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, বিআরটিএ, চট্টগ্রাম এর ২ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এর ১ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোট ২১ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন । ভ্রাম্যমান আদালত ও মনিটরিং কার্যক্রমে সেনাবাহিনী, র‍্যাব, আনসার,বিজিবি ও পুলিশ সদস্যগণ সার্বিক সহযোগিতা করেন।

আজকের অভিযানে হালিশহর, পাহাড়তলি এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রায়হান মেহেবুব ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন। এ সময় ১১ টি মামলায় ৩৫০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করা হয়। চকবাজার, বাকলিয়া ও কর্ণফুলী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাঈমা ইসলাম। এ সময় ০৩ টি মামলায় ১২০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করা হয়। পাশাপাশি আকবরশাহ, বায়েজিদ, হালিশহর ও পাহাড়তলি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট বিবি করিমুন্নেছা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সুরাইয়া ইয়াসমিন। এ সময় ১৩ টি মামলায় মোট ৭৬০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করা হয়।

খুলশী, চাঁন্দগাও ও পাঁচলাইশ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তাহমিনা সারমিন ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট পিযুষ কুমার চৌধুরী ।এ সময় ১৭ টি মামলায় ৭০০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইনামুল হাছান ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট  মোঃ আশরাফুল আলম হালিশহর, পাহাড়তলি এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। এ সময় ৫ টি মামলায় ১৫০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করা হয়।

ফিরিঙ্গীবাজার সদরঘাট ও ডবলমুরিং এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রী খীসা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সোনিয়া হক।এ সময় ১৬ টি মামলায় ৬১০০টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন। হালিশহর, বায়েজিদ ও আকবরশাহ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জিল্লুর রহমান। এ সময় ৩৭ টি মামলায় ১২৬০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করা হয়।

নগরীর বন্দর, পতেঙ্গা ও ইপিজেড এলাকায় অভিযান পরিচালনায় করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আতিকুর রহমান ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জিসান বিন মাজেদ। এ সময় ১৫ টা মামলায় মোট ২৮০০/- টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন। এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক কোতোয়ালি, আগ্রাবাদ ও চকবাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ১২ টি মামলায় ১৮০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।
আরও পড়ুনঃ
স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৩০ কাঁচাবাজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা
চসিকের ভ্রাম্যমান আদালত স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় ৭ পথচারীকে জরিমানা

অন্যদিকে নতুনব্রীজ, মইজ্জারটেক এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন বিআরটিএ এর এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট শান্তনু কুমার দাস ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট শাহারিয়ার মুক্তার। এ সময় ১৪ টি মামলায় ৩৭০০ টাকা অর্থদন্ড আদায় করেন। এছাড়া বাকলিয়া, চকবাজার, চান্দগাও, পাচলাইশ, হালিশহর, পাহাড়তলি, লালখান বাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এর এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মারুফা বেগম নেলী। তিনি ৭ টি মামলায় ১০০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের সংক্রমণ বিস্তার রোধে জেলা প্রশাসন, চট্টগ্রামের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান স্টাফ অফিসার টু ডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক।

বিএস/কেসিবি/সিটিজি/১০ঃ০৮পিএম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ

সহযোগী প্রতিষ্ঠান

© All rights reserved © 2021 The Daily Bangladesh Shomachar
প্রযুক্তি সহায়তায় একাতন্ময় হোস্ট বিডি