1. admin@bangladeshshomachar.com : admin :
রূপগঞ্জে অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বিএনপির প্রতিনিধিদল এ সময় নাছির ভুইঁয়া ও দিপু ভুইঁয়াসহ দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ১৪ - দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৮:৫৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মাঝারি ও ছোটরা এখনো দুর্দিনে চট্টগ্রামে শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী পালিত সফেন প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক বহুমুখী শিল্পস্রষ্টা ড. খান আসাদুজ্জামান ও তাঁর সহধর্মিনী পুলিশ সুপার মাক্সুদা আকতার খানম পিপিএম-কে ঘিরে সুধী সমাবেশ ও সংবর্ধনা রাজশাহী মেডিকেলে একদিনে করোনা ভাইরাসে আরও ১৭ জনের প্রাণহানী পরীমনি ও রাজ মিলে গড়ে তোলেন অপরাধ সাম্রাজ্য;পরিমনি ও রাজসহ আটক ৪ নগরীতে জেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত;১৫৭ মামলায় ৯৯ হাজার টাকা জরিমানা সাংবাদিক আল রাহমানের বাবা চলে গেলেন না ফেরার দেশে পতেঙ্গায় তেল চোরাই চক্র সক্রিয়; ২ হাজার লিটার চোরাই তেলসহ আটক ৩ নেত্রকোণা পৌর ভূমি অফিসের পুরাতন ভবনটি ভুমি যাদুকর ঘোষণা- নতুন ভবন উদ্ভোদন   পিকআপে করে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামে আসছিল দেড় কোটি টাকার ইয়াবার চালান ! বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর ৭২ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে র‌্যালী

রূপগঞ্জে অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বিএনপির প্রতিনিধিদল এ সময় নাছির ভুইঁয়া ও দিপু ভুইঁয়াসহ দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ১৪

Reporter Name
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৫ জুলাই, ২০২১
  • ৪ জন দেখেছেন
Spread this news to

সাহাদাৎ হোসেন বিশেষ প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ।
নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপিতে হঠাৎ করেই আলোচনায় যুগ্ম আহবায়ক নাছির উদ্দিন। সাম্প্রতিক সময়ে দলের শীর্ষ নেতারা তাকে কুর্নিশ করে চলেছেন। তাঁর বাড়িতে অফিসে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত ঢু মারছেন জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতারা। বিপরীতে নাসিরউদ্দিনও তাদের খুশী করে চলেছেন। বিদায়ের বেলায় পকেট ভরে দিচ্ছেন। সবশেষ তিনি আলোচনায় এসেছেন দলের নেতাকর্মীদের হেনস্থা করতে গিয়ে। উল্টো পিটুনীর শিকার হন তিনি।
সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদের নেতৃত্বাধীন কমিটি বিলুপ্ত করে গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর আহবায় কমিটি ঘোষণা দেয়া হয়। আর এই আহবায়ক কমিটিতে আহবায়ক হিসেবে পদ পান বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার এবং সদস্য সচিব হিসেবে পদ পান সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ।
অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার ও অধ্যাপক মামুন মাহমুদের নেতৃত্বাধীন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি বেশ সুনাম কুড়িয়ে আসছিল। তাদের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির
 নেতাকর্মীদের মাঝে প্রাণ ফিরে এসেছে। যে বিএনপি নারায়ণগঞ্জের রাজপথে নামার সাহস পেত না সেই বিএনপির নেতাকর্মীরা তৈমূর আলম খন্দকার ও মামুন মাহমুদের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জের রাজপথ সরব করেছে। তারা পরপর কয়েকটি কর্মসূচিতে নিজেদের শক্তিমত্তার পরিচয় দিয়েছেন।

কিন্তু এই কমিটিকে বিতর্কের মধ্যে ফেলে দেয়ার চেষ্টায় রয়েছেন যুগ্ম আহবায়ক নাছির উদ্দিন। একের পর এক বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে কোন্দল সৃষ্টির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জানা যায়, গত ১৩ জুলাই নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের কর্ণগোপ এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পোড়ে যাওয়া সেজান জুসের কারখানা পরিদর্শন করতে আসেন কেন্দ্রীয় বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল। যা বিএনপির জন্য ইতিবাচক দিক। কিন্তু এই ইতিবাচক দিকটাকে নেতিবাচকে রূপান্তরিত করেছেন যুগ্ম আহবায়ক নাছির উদ্দিন।

এদিন নেতারা কারখানায় প্রবেশের আগে তারা অবস্থান করেন কারখানার পাশেই জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক নাসিরউদ্দিনের একটি ইটখোলায়। সে সময় কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতেই একের পর এক নালিশ করা হয় স্থানীয় কয়েকজন নেতার নামে। 
সেখানে বলা হয় স্থানীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে নানা কথা বলা হয়। কিন্তু তার বিরুদ্ধে সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে আঁতাতের অভিযোগ রয়েছে সে ব্যাপারে কেউ কিছু বলেননি।
এদিকে সকল নেতারা আসার পর দুপুর ১টার দিকে কেন্দ্রীয় নেতারা কারখানার ভেতরে প্রবেশ করেন। ওই সময়ে বিএনপি নেতা মোস্তাফিজুর রহমান দিপুর লোকজনদের বাধা দেন নাসিরউদ্দিন। 
তাছাড়া দিপুকে সেখানে দেখেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন নাসিরউদ্দিন ও সঙ্গে থাকা লোকজনও। ভেতরে কারখানা পরিদর্শনের সময়েও নাসির বিভিন্ন নেতাকে উদ্দেশ্য করে আপত্তিজনক কথা বলেন। কেন্দ্রীয় নেতারা কারখানা থেকে বের হওয়ার পরেই বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা নাসিরকে আটকে বাধা দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি উল্টো ক্ষোভ ঝাড়েন। তখন সেখানে থাকা লোকজন নাসিরকে বেধড়ক পিটুনী দেয়। নাসিরের সঙ্গে থাকা লোকজনও তাকে পেটাতে থাকে। 
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে ওই টিমে ছিলেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার, বিএনপির বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খাইরুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সমাজকল্যান বিষয়ক সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, ঢাকা বিভাগীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, শহীদুল ইসলাম বাবুল।

কারখানা পরিদর্শনের পর নেতারা গেটের বাহিরে আসলে, নাছির ভুইঁয়া , দিপু ভুইঁয়া কে সামনে আসতে বাধাঁ দেন, কে আগে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে দাঁড়াবে, এ নিয়ে শুরু হয়ে যায় তর্ক বিতর্ক এ দিকে দুই গ্রুপের সেলফি আর ফটোসেশন তুলা নিয়ে শুরু হয় ঠেলা ধাক্কা ধাক্কী আর কিল ঘুশি তার পর শুরু হয়ে গণ পিটুনী আর ওই সময়ে উত্তেজনা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে নাসিরের লোকজন তাদের পাশের একটি ইটখোলা থেকে ইট এনে দিপুর সমর্থকদের উপর ছুড়তে থাকে। এতে আহত হয় ১৪-২০ জন।
দিপুর লোকজনদের গণপিটুনির শিকার হন নাছির উদ্দিন। তার সহ কর্মী বাবুল সিকদার, ডিক বাজী খেয়ে দৌরে পালিয়ে যায় এমনিতেও সে খেক শিয়াল নামে পরিচিত আর দলের অযোগ্য ব্যক্তি হিসেবে বিবেচিত যা দিপু ভুইঁয়ার কর্মীদের কাছে থেকে জানা যায়,
তখন দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে পরে কেন্দ্রীয় নেতারা এসে পরিস্থিতি নিবৃত্ত করেন।

পুলিশ টিয়ার ছেড়ে সব দৌরের উপর রাখে ঘটনাস্থলে তা দেখা যায়।আর তাদের সামনেই সংঘর্ষে জড়ান বিএনপির নেতাকর্মীরা। এই ঘটনার নৈপথ্যে নায়ক হিসেবে কাজ করেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক নাসির উদ্দিন। পরে তিনি নিজেই এই ঘটনার শিকার হয়ে যান।

নজরুল ইসলাম খান ওই দলের নেতৃত্ব দেন। এবং ব্রিফিং এ  তিনি বলেন এই সরকার ব্যর্থ সরকার যার প্রমাণ, কারখানার আগুন লাগার ঘটনা এতো লাশ এতো বেজাল ক্যামিক্যাল রাসায়নিক, তারা অনুমোদন ছাড়াই হর ধুমে ব্যবসা প্ররিচালনা করে আসছেন, দূর্ঘটনা ঘনা এখন তারা বলেন লাইসেন্স নেই, অনুমোদন নেই অমুক তুমক নানান কথা, সরকার তার নিজেই তাদের ব্যর্থতার প্রমাণ দিচ্ছেন, তাদের কাছে দেশ জিম্মি হয়ে রয়েছে, ক্ষমতার অপব্যবহার, লুটপাট সন্ত্রাসী নানাভাবে দেশের ১২টা বানাচ্ছেন, তারা কি জানে না সকল ক্ষমতার উৎস জনগণ, এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শিশু শ্রমিক সহ ৫২ জনের লাশ পুরার গন্ধে রূপগঞ্জের আকাশ বাতাস বারি হয়ে রয়েছে, লোক দেখানো আইন কানুন আপনারা বন্ধ করুন তিনি এইসব কথা বলেন।

এদিকে চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হয়ে যায় রূপগেঞ্জর তারাবো পৌরসভার নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে কেন্দ্র বিএনপি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নেমেছিলেন নাছির উদ্দিন। শেষ পর্যন্ত তিনি বিএনপি দলীয় মনোনয়নও পেয়ে যান। ফলে এখান থেকে বিএনপির অন্য কোনো প্রার্থী মাঠে নামেননি।

কিন্তু নির্বাচনী মনোনয়নপত্র যাছাই বাছাইয়ে বাদ পরে যান জেলা বিএনপির বর্তমানের যুগ্ম আহবায়ক নাছির উদ্দিন। কিন্তু এই বাদ পড়ার পিছনে তিনি নিজেই দায়ী বলে অভিযোগ ছিল স্থানীয় নেতাকর্মীদের। তিনি সরকার দলীয় মনোনীত প্রার্থীকে সুযোগ করে দিতেই
 মনোনয়নপত্র গোলমাল কলে জমা দিয়েছিলেন। তিনি সরকার দলীয় মনোনীত প্রার্থীর সাথে আগে থেকেই আঁতাত করে রেখেছিলেন। তারই অংশ হিসেবে শেষ নাছিরের মনোনয়নপত্রটি বাতিল হয়ে যায়। সেই সাথে সরকার দলীয় প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয় পেয়ে যান।

যদিও নাছির উদ্দিন অভিযোগ করেছিলেন সরকার দলীয় প্রার্থী ষড়যন্ত্র করে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করিয়েছে। কিন্তু এই মনোনয়ন পত্র বাতিল হওয়ার পর আদালত এবং হাইর্কোর্টে যাওয়ার সুযোগ থাকলেও তিনি শুধুমাত্র আদালত পর্যন্ত গিয়েছিলেন। মনোনয়নপত্রে বৈধতা পাওয়ার জন্য হাইকোর্ট পর্যন্ত যাওয়ার আর খবর পাওয়া যায়নি। 
ফলশ্রুতিতে নেতাকর্মীদের ধারণ তিনি সরকার দলীয় প্রার্থীকে সুযোগ করে দেয়ার জন্যই অন্য কাউকে নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ না দিয়ে নিজেই মাঠে নেমেছিলেন। সেই সাথে শেষ পর্যন্ত তাকে মাঠ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়।

নাসির উদ্দিনের ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানা যুবদলের আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন অভিযোগ করে বলেন, নাসিরউদ্দিন স্থানীয় আওয়ামীলীগের সাথে আঁতাত করে দলকে সব সময় ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। গত তারাব পৌর নির্বাচনে দলের মনোনয়ন পেয়েও আওয়ামীলীগের প্রস্তাবকারী রেখে মনোনয়ন বাতিলের মাধ্যমে বিনা ভোটে আওয়ামীলীগের প্রার্থীকে নির্বাচিত হতে সুযোগ তৈরী করে দেন নাসির। বিএনপির অনুষ্ঠান বানচালের উদ্দেশ্য সে পরিকল্পিতভাবে এই ন্যাক্কারজনক সংঘাত করিয়েছেন। তার বেদপি বাজে আচরণে নেতা কর্মীরাসহ এলাকার সাধারণ জনগণও বিরক্ত 
অসন্তুষ্ট তার দলের লোকজনেরা বলেন সে বিএনপির জন্য একটি ভাইরাস রোগ, দলে তাকে না রাখাটাই বিএনপির জন্য মঙ্গলময়। দিপু ভুইঁয়া ও তার নেতাকর্মীরা রাগ আর ক্ষোভ ঝাড়েন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ

About Us

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ ড. খান আসাদুজ্জামান
ঠিকানাঃ এম এস প্লাজা (৮তলা) ২৮সি/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল, বা/এ, ঢাকা-১০০০
নিউজ সেকশনঃ ০১৬৪১৪২৮৬৭০
বিজ্ঞাপনঃ ০১৯৯৬৩০৩০৭১
মফস্বলঃ ০১৭১৫২২৮৩২২
ই-মেইলঃ bangladeshshomachar@gmail.com
ওয়েবসাইটঃ www.bangladeshshomachar.com
ই-পেপার: www.ebangladeshshomachar.com
© All rights reserved © 2021 The Daily Bangladesh Shomachar
প্রযুক্তি সহায়তায় একাতন্ময় হোস্ট বিডি