রামগঞ্জ ব্লাড ডোনার’স ক্লাবের ব্যতিক্রমি উদ্যোগ : রিক্সাচালকদের মাঝে ফল বিতরণ

সাখাওয়াত হোসেন, রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি :
রামগঞ্জ ব্লাড ডোনার’স ক্লাব। প্রতিষ্ঠানেলগ্ন থেকে অধ্যাবদি রক্তগ্রহীতাদের রক্তদান, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীদের লাশ স্বেচ্ছায় দাফন, অসহায় দুস্থ্যদের মাঝে খাবার বিতরণ, অক্সিজেনসেবা প্রদান, পিপিই-মাস্ক-রেইনকোট-স্যানেটাইজার বিনামূল্যে বিতরণ, করোনাকালীন রোগী ও লাশ স্থানান্তরে অ্যাম্বুলেন্সসেবা প্রদানসহ বিভিন্ন মানবিক কাজে সবসময়ই নিজেদের সম্পৃক্ত রেখেছেন।
তারই ধারাবাহিকতায় রোববার (২৫ এপ্রিল) বিকেলে রামগঞ্জ উপজেলা শহরের ব্যাটারীচালিত অটোরিক্সা, সিএনজি অটোরিক্সা চালকসহ অসহায় দুস্থ্যদের মাঝে ফল বিতরণ করেছে উক্ত সংগঠনটি। সংগঠনের সদস্য, শুভাকাঙ্খি ও মানবিক ব্যক্তিদের আর্থিক অনুদানে প্রথম ধাপে রামগঞ্জ জিয়া শপিং কমপ্লেক্স গেইট, নুরপ্লাজা চত্বর, রামগঞ্জ শহর পুলিশ বক্স এলাকায় আপেল ও মাল্টার শতাধিক প্যাকেট বিতরণ করা হয়।রামগঞ্জ ব্লাড ডোনার’স ক্লাবের সভাপতি মাহমুদ ফারুকের সার্বিক তত্বাবধানে রামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আবুল খায়ের পাটোয়ারী অটো-সিএনজি চালক ও দুস্থ্যদের হাতে ফলের প্যাকেট তুলে দেন।
সদস্যদের সহযোগীতায় এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সালেহ আহম্মেদ, কমরেড আমির হোসেন, ক্লাবের কোষাধ্যক্ষ রায়হানুর রহমান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাঈদ আলম শাহীন, দপ্তর সম্পাদক লোকমান হোসেন বাবু, সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, সাংবাদিক সাখাওয়াত হোসেন সাকা, রামগঞ্জ ব্লাড ডোনার’স ক্লাবের সদস্য ইকবাল হোসেন বাবু, তামজিদ হোসেন রুবেল, আহাদুল শুভ, নাফসান মাহমুদ প্রমূখ।রামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আবুল খায়ের পাটোয়ারী জানান, এ ধরনের উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসার দাবীদার। সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে তিনি অসহায়, দুস্থ্য ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ করে আরোও বলেন, নিজ নিজ গ্রামের অসহায় মানুষদের মাঝে রমজানে চিনি-সেমাইসহ নিতপন্য দেয়া হলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা একদিন প্রতিষ্ঠা হবেই হবে ইনশাল্লাহ।
রামগঞ্জ ব্লাড ডোনার’স ক্লাবের সভাপতি মাহমুদ ফারুক আর্থিকভাবে সহযোগীতায় এগিয়ে আসার জন্য সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, যার যার অবস্থান থেকে আমরা যদি ক্ষুদ্র আকারে চেষ্টা অব্যাহত রাখি তাহলে অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষগুলোকে আর কষ্ট পেতে হবে না। এ দেশে খাবারের অভাবে কেউ কষ্ট পায়না, অসহায় মানুষরা কষ্ট পায় সমাজপতিদের অবহেলায়। ধনী ও বিত্তবান মানুষ যদি নিজের আত্মীয়স্বজনদের পাশে দাঁড়াতো তাহলে করোনায় মানুষ এত কষ্ট পেতো না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *