সুন্দরগঞ্জে উঠতি বয়সী কিশোর – কিশোরীরা অনলাইন গেমে আসক্ত, হুমকির মুখে ভবিষ্যৎ

  বাপ্পী রাম রাম,সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে দিন দিন ইন্টারনেটে ঝুঁকছে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও উঠতি বয়সী কিশোর-কিশোরীরা। করোনায় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় অনলাইন গেম ফ্রি ফায়ার ও অন্যান্য অনলাইন খেলায় জড়িয়ে পড়ছে তারা।সকাল থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত এ সকল উঠতি বয়সীরা ফ্রি ফায়ার নামক গেমের নেশায় জড়িয়ে থাকছে।
উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে,  প্রায় ১৫ থেকে ২০ বছরের উঠতি বয়সের কিশোর- কিশোরীরা  নিয়মিত এ্যান্ড্রোয়েড ফোন দিয়ে এসব গেমে আসক্ত হচ্ছেন। 
ফ্রি ফায়ার গেমে আসক্ত নবম শ্রেণীর একজন শিক্ষার্থী জানায়, প্রথমে তার কাছে ফ্রি ফায়ার গেমস ভাল লাগত না। কিছু দিন বন্ধুদের দেখাদেখি খেলতে গিয়ে এখন সে আসক্ত হয়ে গেছে। সে আরও জানায় বর্তমানে কয়েকজন মিলে গ্রুপ তৈরি করে জুয়ার মত করে খেলা হয় এসব গেমস,যেখানে ব্যয় হয় নগত টাকা।
ফ্রি ফায়ার নামক গেমসকে মাদক দ্রব্যের নেশার চেয়ে ভয়ঙ্কর বলে উল্লেখ করেন স্থানীয় সুধীজনরা। এই সমস্যা থেকে আমাদের সন্তান, ভাই-বোনদের বাঁচাতে হলে অভিভাবকদের পাশাপাশি সমাজের সচেতন মহল, শিক্ষক-শিক্ষিকা, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসনকে এগিয়ে আসতে হবে তা না হলে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও কিশোর- কিশোরীদের  ভবিষ্যৎ ধ্বংসের মুখে পড়বে বলে তারা জানান।সুন্দরগঞ্জে উঠতি বয়সী কিশোর – কিশোরীরা অনলাইন গেমে আসক্ত, হুমকির মুখে ভবিষ্যৎ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *