রামগঞ্জে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

সাখাওয়াত হোসেন, রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : 
রামগঞ্জে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যুতে সোমবার ১৯ এপ্রিল ভোরে লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। মৃত রেহানা আক্তার উপজেলার নাগরাজারামপুর গ্রামের মিজি বাড়ির আবুল কালামের স্ত্রী।
সূত্র জানায়, মৃতের স্বামী আবুল কালাম দীর্ঘদিন ধরে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে পঙ্গু অবস্থায় রয়েছেন। প্রতিদিনের ন্যায় রাতের খাবার খেয়ে রেহানা আক্তার (৪৪) ও তার স্বামী আবুল কালামসহ ঘুমিয়ে পড়েন। রাত দুইটার পরেই বসতঘরে অজ্ঞাত লোকে ঢিল মারতে থাকে। এর কিছুক্ষন পরেই গৃহবধু নিখোঁজ হয়ে যায়। ওই সময়ে পঙ্গু স্বামীর চিৎকারে ও টিনে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে বাড়ীর মানুষদের সজাগ করেন। বাড়ির লোকজন অনেক অনুসন্ধান করে বাড়ির পাশে ছোট একটি আমগাছের সাথে মাটিতে হাটু-ঘেঁষে, পা বাঁধা ও দড়ি প‍্যাঁচানো অবস্থায় দেখতে পান। এরপরেই স্থানীয় মেম্বার আরিফ হোসেন থানা পুলিশকে অবহিত করেন। সোমবার ভোরবেলা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে জেলা মর্গে প্রেরণ করেন।  এদিকে নিহতের স্বামী কোনও কথা বলতে পারেননি। নিহতের মেয়ে আলেয়া বেগম ও নার্গিস বেগম জানান, বাড়িতে কিংবা গ্রামে আমাদের করোও সাথে কোনও শত্রুতা নেই। কাহারো সাথে পারিবারিক বিরোধও ছিলোনা। তবে কিভাবে মায়ের মৃত্যু হয়েছে তাহাও বুঝতি পারছিনা। নিহতের বড় ভাই হারুনুর রশিদ সহ বাড়ির লোকজন জানান, রেহানা বেগম আত্মহত্যা করার মত নহে। তার মরদেহ জ্বলন্তও নহে। মাটিতে পা রেখে হাটু ঘেঁষে গলায় দড়ি ঝুলানো ছিল।রামগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) কার্তিক চন্দ্র জানান, থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।  ময়নাতদন্তের রির্পোটের উপর ভিত্তি করে পরবর্তীতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *