গাজীপুরে নিজ উদ্যোগে রাস্তার জন্য জমি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন স্থানীয়রা

স্টাফ রিপোর্টার, এম হাসান

গাজীপুর মহানগরীর বাইমাইল ১২নং ওয়ার্ডে জনসাধারণের চলাচলের সুবিধায় নিজ উদ্যোগে রাস্তা তৈরিতে জমি দান করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো চার ব্যাক্তি ও তাঁর পরিবার। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ বিশিক এলাকায় জমির অধিক মূল্য হলেও জনকল্যাণের কথা চিন্তা করে এমনি মহতী উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাচ্ছে এলাকাবাসী। সরেজমিনে দেখাযায় কোনাবাড়ি পল্লী বিদ্যুত সংযোগ সড়ক হইতে এন টি কে সি এর পাস ঘেঁসে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে রাস্তাটি মিলিত করতে ইতিমধ্যে স্ব উদ্যোগে নিজ নিজ স্থাপনা ভেঙ্গে সরিয়ে নিচ্ছে রাস্তায় জমি দানকারীগণ। এলাকাবাসী ও জমি দানকারীদের সাথে কথা বলে জানাযায় বিশ বছর আগে মোঃআব্দুল খালেক ভান্ডারী, মোঃসোলেমান ভান্ডারী ও তাঁর চার মেয়ে এলাকাবাসীর চলাচল ও নাগরীক জীবনে রাস্তাটির গুরুত্ব অনুধাবন করে নিজেদের জমির উপর প্রায় তিনশত ফুট রাস্তা তৈরি করে। রাস্তাটি ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের সাথে মিলিত করার ইচ্ছে থাকলে ঘনবসতি, শফিক ও গণি মিয়ার বাড়ি থাকায় সেসময় রাস্তাটির কাজ সম্পুর্ন করা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। গত ২৮ ফেব্রুয়ারিত সন্ধ্যায় গ্যাস সিলিন্ডারের আগুনে ৫৭০ টি পরিবার আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত হয়। একটি রাস্তার অভাবে সেদিন আগুন নিভাতে আসা ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি গুলো নিরব দর্শকের ভুমিকা পালন করে। এছাড়া সরু রাস্তার কারণে বিশাল এলাকার মানুষের বাড়িঘর থেকে কিছুই সরাতে পারেনি, চোখের সামনেই নিমিষেই সব পুড়ে ভস্মীভূত হয়।বর্তমানে মোঃশফিক ও মোঃগণি মিয়া রাস্তার গুরুত্ব অনুধাবন করে নিজ নিজ মার্কেট বসতবাড়ি ভেঙ্গে রাস্তাটি ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের সাথে মিলিত করতে কাজ করছেন। সিটি কর্পোরেশন ৫৭ ওয়ার্ডের রাস্তাগুলো মেয়র মহোদয়ের ঘোষণা অনুযায়ী বিভিন্ন মুক্তিযোদ্ধাদের নামে নামকরণে কথা থাকলেও এলাকাবাসী দাবী রাস্তাটি আব্দুল খালেক ও সোলেমানের পিতা নামে নামকরণ করার। স্থানীয় কাউন্সিল হাজী মোঃআব্বাস উদ্দিন খোকন আব্দুল খালেক,মোঃ সোলেমান,মোঃশফিক,মোঃগণি মিয়ার মহোতী উদ্যোগ ৪৭০ দৈর্ঘ্য ও ১৬ ফুট প্রশস্ত রাস্তা তৈরিতে আন্তরিক ভাবে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাধ জানান। এছাড়া এলাকাবাসীর দাবী অনুযায়ী রাস্তাটির নাম করণ ও সার্বিক সহোযোগিতা করার কথাও বলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *